Start Planning
স্বাধীনতা দিবস

স্বাধীনতা দিবস 2020, 2021 এবং 2022

১৫ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবস একটি জাতীয় ছুটির দিন। এ দিনটি উদযাপন করা হয়, কারণ এ দিনে ভারত ব্রিটিশ শাসন থেকে স্বাধীন হয়েছিলো।

বছরতারিখদিনছুটিররাজ্য
202015 অগাস্টশনিবারস্বাধীনতা দিবস জাতীয়
202115 অগাস্টরবিবারস্বাধীনতা দিবস জাতীয়
202215 অগাস্টসোমবারস্বাধীনতা দিবস জাতীয়

১৭শ শতাব্দী থেকে ইউরোপীয় ব্যবসায়ীরা ভারতে অবস্থান করা শুরু করে। ১৮শ শতকে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি, একটি ব্রিটিশ কোম্পানি ভারতে রেশম, তুলা, চা এবং লবণের মত বাণিজ্যের পণ্যগুলো নিয়ে ব্যবসা শুরু করে, তারপর তারা ভারতের অনেক অঞ্চল দখল করে এবং শীঘ্রই এটাকে নিজের বলে দাবি করে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর, এটা স্পষ্ট হয়ে ওঠে যে ব্রিটেন ভারতকে আর নিজের দখলে রাখতে পারছে না। মূলত, স্বাধীনতার হস্তান্তর ১৯৪৮ সালের জুনে হওয়ার কথা ছিলো, তবে সে সময় ধর্ম সংক্রান্ত সহিংস ক্রিয়াকলাপের কারনে ১ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু ঘটেছিল। এ কারনে তৎকালীন ভারতবর্ষের ব্রিটিশ গভর্নর জেনারেল লর্ড মাউন্টব্যাটেনকে হস্তান্তরের দিন কে ১০৪৭ সালে এগিয়ে নিয়ে আসতে বাধ্য করা হয়েছিল।

ব্রিটিশ ভারতে দুইটি শাসনব্যবস্থা হয়ে ওঠে: ১৯৪৭ সালের ১৪ই আগস্টে পাকিস্তান একটি দেশ হয়ে ওঠে এবং ১৯৪৭ সালের ১৫ই আগস্ট, ভারত একটি দেশ হয়ে ওঠে এবং ১০৪৮ সালে প্রথম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করা হয়।

আজ উদযাপনের আগের দিন প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন। তারপর, ১৫ তারিখ দিল্লীতে, তিনি রেড ফোর্টের প্রাচীরে ভারতীয় পতাকা উড়িয়ে দেন। অনুষ্ঠানের সময়, ২১-বন্দুকের সালাম প্রদান করা হয়, বক্তৃতা দেয়া হয় এবং ভারতীয় জাতীয় সংগীত ‘জন গান মন’ গাওয়া হয়। এটি একটি বিশেষ দিন। এদিন ব্রিটিশদের কাছে থেকে স্বাধীনতা অর্জনের জন্য লড়াই করে জীবন উৎসর্গকারীদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করা হয়।

১৫ আগস্টের আগের সপ্তাহ এবং বিশেষ করে ঐ দিনে, স্কুল, অফিস, বাড়ী এবং শহরের কেন্দ্রগুলিতে প্রতিটি পতাকাদণ্ডে পতাকা উড়ানো হয়। শিশু ও বয়স্করা সর্বত্রই ভারতের পতাকা বহন বা পরিধান করে, এই দিনে আমাদের দেশের ধর্ম-মত নির্বিশেষে সবাই জাতীয় ছুটির দিনে স্বাধীনতা দিবসটি উদযাপন করে। ভারতে, ১৫ আগস্ট দিনটিকে গৌরবান্বিত দেশপ্রেমিকের দিন, এই দিনটি ঘুড়ি উড়িয়ে, ভোজের আয়োজন করে, আনন্দ মিছিল করে এবং উৎসবের মাধ্যমে উদযাপন করা হয়।